শিরোনাম
কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের পাশাপাশি রাষ্ট্রের সংস্কারের দাবি ছাত্র ইউনিয়নের ‘‘স্থায়িত্বশীল নগরায়ন: সমস্যা ও সমাধান’’ বিষয়ক বাপা’র পুস্তিকা উম্মোচন ৬-৮ জুন ছাত্র ইউনিয়নের ৪২তম জাতীয় সম্মেলন ফার্মগেটের আনোয়ারা উদ্যান ফিরিয়ে দিতে ৩০ দিনের আল্টিমেটাম কর্মসংস্থানবান্ধব বাজেটের দাবিতে যুব ইউনিয়ন এর সেমিনার সিপিবি’র “বাজেট : গণমানুষের ভাবনা” শীর্ষক আলোচনা সভা জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ঘোষণা, রেশন ব্যবস্থা ও ন্যায্যমূল্যের দোকান চালুর দাবি শ্রমিক শ্রেণীর অধিকার আদায় ও শোষণ মুক্তির সংগ্রাম বেগবান করুন তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণে বাপা’র ৮ দফা দাবী ১লা মে কিভাবে শ্রমিক দিবস হলো?

আন্তর্জাতিক টিটোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন মুশফিক

আন্তর্জাতিক টিটোয়েন্টি থেকে অবসর নিয়েছেন মুশফিক

-টোয়েন্টি ক্রিকেটে মুশফিকুর রহিমের ভবিষ্যৎ কী-অনেক দিন ধরেই বাংলাদেশের ক্রিকেট মহলে এমন আলোচনা হচ্ছিল। এশিয়া কাপের গ্রুপ পর্বের দুটি ম্যাচে ব্যাট হাতে ব্যর্থ হওয়ার পর সেই আলোচনা আরও বেগবান হয়েছে।

সব আলোচনা থামিয়ে দিয়ে মুশফিকুর আজ আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরের ঘোষণা দিয়েছেন। টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশের হয়ে আর না খেলার ঘোষণা দিতে মুশফিক বেছে নিয়েছেন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম।

বাংলাদেশের উইকেটকিপার-ব্যাটসম্যান টুইটার ও ফেসবুকে লিখেছেন, আমি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি থেকে অবসরের ঘোষণা দিচ্ছি। এখন থেকে টেস্ট আর ওয়ানডে ক্রিকেটেই মনোযোগ দিতে চাই। তবে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগসহ বিভিন্ন দেশের টি-টোয়েন্টিগুলোতে খেলে যাবেন বলেও জানিয়েছেন মুশফিক, সুযোগ এলে আমি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতে খেলার জন্য তৈরি আছি।

টু্‌ইটে মুশফিক এরপর যোগ করেন, বাকি দুই সংস্করণে (টেস্ট ও ওয়ানডে) দেশকে প্রতিনিধিত্ব করার জন্য গর্ব নিয়ে উন্মুখ হয়ে আছি।

এশিয়া কাপের দুটি ম্যাচ মিলিয়ে মুশফিকুর করতে পেরেছেন ৪ রান। শারজায় আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে এলবিডব্লু হওয়ার আগে ৪ বলে করেছেন ১ রান। আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে দ্বিতীয় ম্যাচে ৫ বলে তাঁর রান ছিল ৪।

এমনিতেও মুশফিক যে টি-টোয়েন্টিতে খুব ভালো ব্যাটসম্যান, সেটা বলা যাচ্ছে না। এই সংস্করণে ১০২ ম্যাচ খেলে ১৯.৪৮ গড়ে তাঁর রান ১৫০০। স্ট্রাইক রেটও খুব একটা আহামরি নয়-১১৫.০৩, ফিফটি আছে ৬টি।

মুশফিকের টি-টোয়েন্টি অভিষেক ২০০৬ সালে, খুলনায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে। আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেকের ম্যাচে মাত্র দুই রান করেছেন মুশফিক। প্রথম ফিফটি পেয়েছেন টি-টোয়েন্টি ক্যারিয়ারের ৩০তম ম্যাচে। এ সংস্করণে তাঁর সর্বোচ্চ রান অপরাজিত ৭২। ২০১৮ সালের নিদাহাস ট্রফিতে এই রান তিনি করেছিলেন ভারতের বিপক্ষে। ৮টি চার ও একটি ছয়ে ৫৫ বলে খেলা ইনিংসটিতে দলকে জয় এনে দিতে পারেননি মুশফিক।